cart_icon
0

TK. 0

book_image

ওজারতির দুই বছর (হার্ডকভার)

by মুহাম্মদ আতাউর রহমান খান

Price: TK. 360

TK. 480 (You can Save TK. 120)
ওজারতির দুই বছর

ওজারতির দুই বছর (হার্ডকভার)

মুখ্যমন্ত্রিত্বের দিনগুলি ১৯৫৬-৫৮

2 Ratings
TK. 480 TK. 360 You Save TK. 120 (25%)
In Stock (only 1 copy left)

* স্টক আউট হওয়ার আগেই অর্ডার করুন

tag_icon

নগদ পেমেন্টে ২১% ইন্সট্যান্ট ক্যাশব্যাক (সর্বোচ্চ ১০০৳)

tag_icon

চলছে স্টেশনারি মেলা। BOGO অফার, ৪৭% পর্যন্ত ছাড়সহ থাকছে - ফ্রি Fevecon adhesive, ক্যালকুলেটর, ফোকাস চ্যালেঞ্জ, Room Heater পাওয়ার সুযোগ। চলবে ১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত...

stationary mela offer

Product Specification & Summary

"ওজারতির দুই বছর"বইটির সম্পর্কে কিছু কথা:
আতাউর রহমান খান (১৯০৭-৯১) এ দেশের সর্বাগ্রগণ্য রাজনীতিকদের একজন। পেশায় ছিলেন আইনজ্ঞ কিন্তু রক্তে ছিল রাজনীতির নেশা। তাঁর সময়ের অনেকের মতাে তিনিও মনে করতেন, রাজনীতির মধ্য দিয়েই সর্বোত্তমভাবে দেশ ও জনগণের স্বার্থরক্ষা ও কল্যাণ সাধন করা যায়। আর এই বােধ থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চশিক্ষা নিয়েও তিনি যােগ দিয়েছিলেন রাজনীতিতে। স্বাধীন জীবিকার উপায় হিসেবে বেছে নেন আইনজীবীর পেশা। ১৯৪৭-পূর্ব সময়ে মুসলিম লীগে যােগ দিয়ে পাকিস্তান আন্দোলনে শরিক হন। কিন্তু উপমহাদেশের সাম্প্রদায়িক সমস্যার সমাধান হিসেবে ভারত ভাগ ও পাকিস্তানের দাবিকে সমর্থন করলেও তিনি ও তাঁর সতীর্থদের অনেকে পাকিস্তানকে দেখতে চেয়েছিলেন একটি অসাম্প্রদায়িক ও গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র হিসেবে। বলাই বাহুল্য, তাদের সে স্বপ্ন শুরুতেই একটা বড় ধরনের হোঁচট খায় রাষ্ট্রভাষার প্রশ্নে পাকিস্তানি শাসকদের আচরণে। এরই পাশাপাশি আরও নানা ঘটনায় দল হিসেবে মুসলিম লীগ ও রাষ্ট্র হিসেবে পাকিস্তানের চরিত্র উন্মােচিত হতে থাকে। এ অবস্থায় ১৯৪৯ সালে মুসলিম লীগ থেকে বেরিয়ে মাওলানা ভাসানী ও হােসেন শহীদ সােহরাওয়ার্দীর নেতৃত্বে আওয়ামী মুসলিম লীগ গঠনে। আতাউর রহমান খান গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। পরবর্তীকালেও প্রথমে আওয়ামী লীগের ও পরে এনডিএফের নেতা হিসেবে ১৯৫০ ও ১৯৬০-এর দশকে এ দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে তিনি বিশিষ্ট অবদান রাখেন।
১৯৫৪ সালে প্রাদেশিক পরিষদের নির্বাচনে যুক্তফ্রন্টের ঐতিহাসিক বিজয়ের পর প্রথমে যুক্তফ্রন্ট মন্ত্রিসভার সদস্য ও পরে ১৯৫৬ সালে আওয়ামী লীগ কোয়ালিশন মন্ত্রিসভার মুখ্যমন্ত্রী হন তিনি। সেই সুবাদে প্রশাসনের ভেতর থেকেও পাকিস্তানি শাসক ও শােষকদের ভয়ংকর চেহারা ও চরিত্র নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করার সুযােগ হয় তাঁর। মূলত এসব অভিজ্ঞতাই ওজারতির দুই বছর বইয়ের বিষয়। বাঙালিদের প্রতি পাকিস্তানি শাসকদের ঘৃণা ও বিদ্বেষ তথা ঔপনিবেশিক আচরণ এবং আমলাতন্ত্রের গণবিরােধী চরিত্রটি তিনি নানা দৃষ্টান্তসহযােগে তুলে ধরেছেন। সামরিক বাহিনীর পাশাপাশি বেসামরিক প্রশাসনে নিয়ােগের ক্ষেত্রেও বাঙালিদের প্রতি চরম বৈষম্য প্রদর্শনের বিস্তারিত বর্ণনা দিয়েছেন তিনি এ বইতে। এর প্রেক্ষাপটেই উঠে এসেছে পূর্ব বাংলার স্বায়ত্তশাসন, দুই অঞ্চলের জন্য পৃথক অর্থনীতি প্রবর্তনের প্রসঙ্গ। আছে যুক্তফ্রন্টের অভ্যন্তরীণ দুর্বলতা, শরিকি দ্বন্দ্ব এবং ক্ষমতার লােভে রাজনীতিকদের অনেকের প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ ও জনগণের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতার কথাও। বস্তুত রাজনীতিকদের এই দ্বন্দ্ব ও দুর্বলতার সুযােগেই ঘটে সামরিক শাসন জারি ও আইয়ুব খানের ক্ষমতা গ্রহণ। আর এ সবকিছুর পেছনেই ছিল পাকিস্তানি শাসকদের সূক্ষ্ম ও গভীর ষড়যন্ত্র । সরস ভাষায় ও সরল ভঙ্গিতে লেখা আতাউর রহমান খানের এ বই হয়ে উঠেছে বাংলাদেশের স্বাধীনতা-পূর্বকালের একটি রাজনৈতিক কালপর্বের মূল্যবান ঐতিহাসিক দলিল।
Title ওজারতির দুই বছর
Author
Publisher
ISBN 9789849240211
Edition 1st Published, 2017
Number of Pages 259
Country বাংলাদেশ
Language বাংলা

Sponsored Products Related To This Item

Customers Also Bought

Similar Category Best Selling Books

Related Products

Reviews and Ratings

5.0

2 Ratings

Product Q/A

Have a question regarding the product? Ask Us

Show more Question(s)

Recently Sold Products

Recently Viewed

cash

Cash on delivery

Pay cash at your doorstep

service

Delivery

All over Bangladesh

return

Happy return

7 days return facility

0 Item(s)

Subtotal:

Customers Also Bought