গ্রামের নাম কাঁকনডুবি: মুহম্মদ জাফর ইকবাল - Gramer Nam Kakondubi: Muhammed Zafar Iqbal | Rokomari.com

Product Specification

Title গ্রামের নাম কাঁকনডুবি
Author মুহম্মদ জাফর ইকবাল
Publisher তাম্রলিপি
Quality হার্ডকভার
ISBN 9847009602771
Edition 1st, 2015
Number of Pages 256
Country বাংলাদেশ
Language বাংলা

Product Summary

গ্রামের নাম কাঁকনডুবি বইয়ের সামারিঃ
বেশ কিছু মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক কিশোর উপন্যাস মুহম্মদ জাফর ইকবাল লিখছেন, যার মধ্যে ২০১৫ বইমেলায় সর্বশেষ প্রকাশিত হয় গ্রামের নাম কাঁকনডুবি। বইটি মূলত কাঁকনডুবি গ্রামকে নিয়ে লেখা, সেখানকার নবকুমার স্কুলের ছাত্র রঞ্জুকে নিয়ে গল্পের পটভূমি তৈরি হয়েছে। দিন যেতে যেতে একসময় সেই শান্ত নীরব কোলাহল বিমুখ গ্রামটিতে পাক হানাদার বাহিনী আক্রমণ করে। সেখানকার স্কুলের এক শিক্ষক মজিদ ভাই তাঁর মুক্তিবাহিনী নিয়ে সেই হানাদার বাহিনীকে প্রতিরোধ করার জন্য তৈরি হয়ে। ঘটনাক্রমে সেই দলে যুক্ত হয় রঞ্জু ও খোকন(ডোরা)। পাকিস্তানি বাহিনী তাদের স্কুলে ঘাঁটি বসায়, এক সময় তাঁরা রঞ্জুকে ধরে নিয়ে গিয়ে খুব অত্যাচার করে। পাকিস্তানিদের বিদায় করতে হলে তাদের কে সেখানে আক্রমণ করতে হবে। একে কে তাঁরা সেই সম্মুখ আক্রমণের প্রস্তুতি নিতে থাকে এইভাবে চলে গল্প। আর শেষটা কি হল জানতে পড়তে হবে বইটি। বইটি বিশাল পরিসরে লেখা, গ্রামের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র বর্ণনা থেকে শুরু করে সেই সময়ের মুক্তিযুদ্ধের সময় মানুষের আবেগ, ভয়, সীমাহীন দুঃখ সব কিছু লেখক খুব সাবলীল ভাষায় ফুটিয়ে তুলেছেন।

মেয়েগুলো আমাদের দিকে তাকাল, চোখের দৃষ্টি এত আশ্চর্য যে আমার বুকটা ধক করে উঠল। এত তীব্র দৃষ্টি আমি কখনো দেখিনি, সেখানে কোনো বা আতঙ্ক নেই, দৃষ্টিটা আশ্চর্য রকম তীক্ষ্ম। আমি কী বলব, বুঝতে পারলাম না। ঢোঁক গিলে বললাম, “আপনাদের আর কোনো ভয় নাই। যুদ্ধ শেষ। খোদার কসম। যুদ্ধ শেষ।” লালচে চুলের একটা মেয়ে, যার চোখের দৃষ্টি সবচেয়ে ভয়ংকর, সে আস্তে আস্তে প্রায় ফিসফিস করে বলর, “তোমাদের যুদ্ধ শেষ আমাদের যুদ্ধ শুরু।”

Author Information

বাংলাদেশের কিশোর-কিশোরী পাঠকদের কাছে সবচেয়ে জনপ্রিয় নাম মুহম্মদ জাফর ইকবাল। তিনি মূলত এ দেশের একজন বিখ্যাত লেখক, পদার্থবিদ এবং শিক্ষাবিদ। কিশোর সাহিত্য, শিশুতোষ গ্রন্থ, বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী, গণিত বিষয়ক বই এর জন্য খুব অল্প সময়েই জনপ্রিয়তা লাভ করেন তিনি। মুহম্মদ জাফর ইকবাল ১৯৫২ সালের ২৩ ডিসেম্বর সিলেটে জন্মগ্রহণ করেন। মুক্তিযোদ্ধা বাবা ফয়জুর রহমানের চাকরির সুবাদে দেশের বিভিন্ন জেলাতেই তিনি পড়াশোনা করেছেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শেষ করে পিএইচডি ডিগ্রী অজর্নের উদ্দেশ্যে স্কলারশিপ নিয়ে পাড়ি জমান যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ে। পিএইচডি সম্পন্ন করে ক্যালিফোর্নিয়া ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজিতে পোস্ট-ডক্টরাল গবেষণা সম্পন্ন করেন। পরবর্তীতে বিখ্যাত বেল কমিউনিকেশনস রিসার্চ ল্যাবেও গবেষক হিসেবে যোগদান করেন। ১৯৯৪ সালে দেশে ফিরে এসে তিনি শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের বিভাগীয় প্রধান হিসেবে যোগ দেন। মুহম্মদ জাফর ইকবাল এর বই সবসময়ই এ দেশের কিশোর-কিশোরীদের কাছে বিশেষ আবেদন নিয়ে হাজির হয়েছে। কিশোর সাহিত্য, বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী, বিজ্ঞান ও গণিত বিষয়ক অজস্র গ্রন্থ দিয়ে তিনি আলোকিত করে তুলেছেন এদেশের অগণিত কিশোর-কিশোরীর মনোজগত। মুহম্মদ জাফর ইকবাল এর বই সমূহ, যেমন- দীপু নাম্বার টু, আমার বন্ধু রাশেদ, আমি তপু, শান্তা পরিবার, দস্যি ক’জন ইত্যাদি ব্যাপক পাঠকপ্রিয়তা পায়। তার বেশ কিছু গল্প পরবর্তীতে নাটক ও চলচ্চিত্র হিসেবে টিভি পর্দায় স্থান করে নিয়েছে। তিনি একজন বিশিষ্ট কলামিস্টও। বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াডও তাঁর ছত্রছায়ায় গড়ে উঠেছে। মুহম্মদ জাফর ইকবাল এর বই সমগ্র সকল বইপড়ুয়াকেই আকৃষ্ট করে। সাহিত্যে অসামান্য অবদানের জন্য তিনি বহুবার পুরষ্কৃত হয়েছেন। বাংলা একাডেমি পুরষ্কার (২০০৪) এবং শ্রেষ্ঠ নাট্যকার হিসেবে মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার (২০০৫) সেগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য। এছাড়াও, কাজী মাহবুবুল্লা জেবুন্নেছা পদক (২০০২), শেলটেক সাহিত্য পদক (২০০৩), ইউরো শিশুসাহিত্য পদকসহ (২০০৪) অগণিত পুরষ্কার অর্জন করেছেন গুণী এই সাহিত্যিক।

গ্রামের নাম কাঁকনডুবি

গ্রামের নাম কাঁকনডুবি

by মুহম্মদ জাফর ইকবাল

(77)

TK. 400

TK. 340

Save TK. 60 (15%)



In Stock (only 10 copies left)

tag_icon

১৮-২১ জানুয়ারি ৩০০+ টাকার শিশু-কিশোর বই অর্ডার করলেই ১টি শিশুতোষ বই ফ্রি!


icon

Delivery Charge Tk. 50(Online order)

icon

Purchase & Earn

Sponsored Products Related To This Item

Readers also bought

Reviews and Ratings

4.71

77 Ratings and 27 Reviews

Product Q/A

Have a question regarding the product? Ask Us

Show more Question(s)

Recently Sold Products