cart_icon
0

TK. 0

book_image

শ্রেষ্ঠ কবিতা

by রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

Price: TK. 255

TK. 300 (You can Save TK. 45)
শ্রেষ্ঠ কবিতা

শ্রেষ্ঠ কবিতা

8 Ratings / 1 Review

TK. 300

TK. 255 You Save TK. 45 (15%)

tag_icon

১০১০+ টাকার অর্ডার করলেই নিশ্চিত ফ্রি শিপিং

tag_icon

বিকাশ পেমেন্টে নিশ্চিত ইনস্ট্যান্ট ১০% ক্যাশব্যাক (শর্ত প্রযোজ্য)

Product Specification & Summary

সূচিপত্র
এক সূত্রে বাঁধিয়াছি সহস্রটি মন
* সখী, ভাবনা কাহারে কয়, সখী, যাতনা কাহারে বলে
* আমার প্রাণের ‘পরে চলে গেল কে
* মরণ রে, তুঁহু মম শ্যামসমমান
* মরিতে চাহি না আমি সুন্দর এ ভুবনে
* নারীর প্রাণের প্রেম মধুর কোমল
* ধুরের কানে যেন অধরের ভাষা
* ফেলো গো বসন ফেলো, ঘুচাও অঞ্চল
* প্রতি অঙ্গ কাঁদে তব প্রতি অঙ্গ তরে
* কেন চেয়ে আছ গো মা মুখপানে?
* আমায় বোলো না গাহিতে বোলো না
* ভালো যদি বাস সখী, কী দিব গো আর
* পুরোনো সেই দিনের কথা, ভুলবি কি রে হায়
* এ শুধু অলস মায়া, এ শুধু মেঘের খেলা
* তবু মনে রেখো, যদি দূরে যাই চলি
* ‘বেলা যে পড়ে এল, জলকে চল!
* এমন দিনে তারে বলা যায়
* বঁধু, তোমায় করব রাজা তরুতলে
* কবিবর, কবে কোন বিস্মৃত বরষে
* গগনে গরজে মেঘ, ঘন বরষা
* স্বপ্ন দেখেছেন, রাত্র হবুচন্দ্র ভূপ
* খাঁচার পাখি ছিল, সোনার খাঁচাটিতে
* আমি পরানের সাথে খেলিব আজিকে
* যদি ভরিয়া লইবে কুম্ভ, এসো ওগো, এসো মোর
* আর কত দূরে নেয় যাবে মোরে
* সংসারে সবাই যবে সারাক্ষণ শত কর্মে রত
* অন্ধকার বনচ্ছায়ে সরস্বতীতীরে
* আমরা লক্ষ্ণীছাড়ার দল ভবের পদ্মপত্রে জল
* শুধু বিঘে দুই ছিল মোর ভুঁই, আর সবই গেছে ঋণে
* নহ মাতা, নহ কন্যা, নব বধু, সুন্দরী রূপসী
* অচ্ছোদসরসীনীরে রমণী যেদিন
* আজি হতে শতবর্ষ পরে
* খেয়ানৌকা পারাপার করে নদীস্রোতে
* দাও ফিরে সে অরণ্য লও এ নগর
* পুণ্যে পাপে দুঃখে সুখে পতনে উত্থানে
* শুধু বিধাতার সৃষ্টি নহ তুমি নারী
* তবু কি ছিল না তব সুখ দুঃখ যত
* রথযাত্রা, লোকারণ্য, মহা ধুমধাম
* শৈবাল দিঘিরে বলে উচ্চ করি শির
* দ্বার বন্ধ ক’রে দিয়ে ভ্রমটারে রুখি
* উত্তম নিশ্চিন্তে চলে অধমের সাথে
* গ্রামে গ্রামে সেই বার্তা রটি গেল ক্রমে
* নৃপতি বিম্বিসার
* নদীতীরে,তবৃন্দাবনে, সনাতন একমনে
* প্রত দিল পাঠান কেসর কাঁরে
* যদিও সন্ধ্যা আসিছে মন্দ মন্থরে
* ওই আসে ওই অতি বৈরব হরষে
* পঞ।চশরে দগ্ধ করে করেছ এ কী সন্ন্যাসী
* এ কি তবে সবই সত্য
* বন্ধু, কিসের তরে অশ্রু ঝরে, কিসের লাগি দীর্ঘশ্বাস
* ওগো কাঙাল, আমারে কাঙাল করেছ
* যামিনী না যেতে জাগালে না কেন
* অয়ি ভুবনমনোমোহিনী
* ওরে মাতাল , দুয়ার ভেঙে দিয়ে
* পঞ্চাশোর্ধ্বে বনে যাবে
* আজ বসন্তে বিশ।বখাতায়
* মনেরে আজ কহ যে
* আমি যদি জন্ম নিতেম কালিদাসের কালে
* আমি যে বেশ সুখে আছি
* আমরা দুজন একটি গাঁয়ে থাকি
* হাল ছেড়ে আজ বসে আমি আমি
* যেদিন হিমাদ্রিশৃঙ্গে নামি আসে আসন্ন আষাঢ়
* কত কাল রবে বল’ ভারত রে
* নীল নবঘনে আষাঢ় গগণে
* কৃষ্ণকলি আমি তারেই বলি
* মনে করো, যেন বিদেশ ঘুরে
* পাগল হইয়া বনে বনে ফিরি
* দিনের শেষে ঘুমের দেশে ঘোমটা-পরা ওই ছায়া
* আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি
* যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে তবে একলা
* আজি বাংলাদেশের হৃদয় হতে কখন আপনি
* সার্থক জনম আমার জন্মেছি এই দেশে
* তোরা কেউ পারবি নে গো
* আমি বহু বাসনায় প্রাণপণে চাই
* ও যে মানে না মানা
* পারবি না কি যোগ দিতে এই ছন্দে রে
* জগতে আনন্দযজ্ঞ আমার নিমন্ত্রণ
* আমি এই গন্ধবিধুর সমীরণে
* আরো আঘাত সইবে আমার, সইবে আমারে
* হে মোর চিত্ত, পুণ্য তীর্থে
* হে মোর দুর্ভাগ্য দেশ, যাদের করেছ অপমান
* আমার সকল নিয়ে বসে আছি সর্বনাশের আশায়
* আমি রূপে তোমায় ভোলাব না, ভালোবাসায় ভোলাব
* ঘরেতে ভ্রমর এল গুনগুনিয়ে
* সুন্দর বটে তব অঙ্গদখানি তারায় তারায় খচিত
* জানি গো দিন যাবে
* যদি প্রেম দিলে না প্রাণে
* নিত্য তোমার যে ফুল ফোটে ফুল বনে
* তোমায় আমায় মিলন হবে বলে আলোয় আকাশ
* ওরে নবীন, ওরে আমার কাঁচা
* এ কথা জানিতে তুমি, ভারত ঈশ্বর শা-জাহান
* সন্ধ্যারাগে ঝিলিমিলি ঝিলমের স্রোতকানি বাঁকা
* আমার নিকড়িয়া রসের রসিক কানন, ঘুরে ঘুরে
* ‘আমি পথভোলা এক পথিক এসেছি’
* ডাক্তারে যা বলে বলুক নাকো
* দিনগুলি মোর সোনার খাঁচায় রইল না
* তালগাছ এক পায়ে দাঁড়িয়ে
* মাকে আমার পড়ে না মনে
* এখানে নামল সন্ধ্যা। সূর্যদেব, কোন দেশে কোন
* গাড়িতে ওঠবার সময় একটুখানি মুখ ফিরিয়ে
* আঁধার রাতে একলা পাগল যায় কেঁদে
* যৌবনবেদনারসে উচ্ছল আমার দিনগুলি
* দুয়ার বাহিরে যেমনি চারি রে মনে হল যেন চিনি
* আজিকার দিন না ফুরাতে
* বনে যদি ফুটল কুসুম নেই কেন সেই পাখি
* আঁধারের লীলা আকাশে আলোকলেখায় লেখায়
* মধ্যদিনে যবে গান বন্ধ করে পাখি
* তুনি যে তুমিই, ওগো
* পথ বেঁধে দিল বন্ধনহীন গ্রন্থি
* নারীকে আপন ভাগ্য জয় করিবার
* সাগরজলে সিনান করি সজল এলো চুলে
* বসন্তবায় সন্ন্যাসী হায়, চৈৎ ফসলের শূন্য ক্ষেতে
* ধর্মের বেশে মোহ যারে এসে ধরে
* একটুকু ছোঁওয়া লাগে, একটুকু কথা শুনি
* প্রাঙ্গণে মোর শিরীষশাখায় ফাগুন মাসে
* নীল-অঞ্জনঘন পুঞ্জছায়ায়
* কিনু গোয়ালার গলি
* মনে পদে, যেন এক কালে লিখিতাম
* তোমারে জাকিনু যবে কুঞ্জবনে
* যায় আসে সাঁওতাল মেয়ে
* আজ আমার প্রণতি গ্রহণ করো, পৃথিবী
* ওরা,অন্ত্যজ, ওরা মন্ত্রবর্জিত
* বাংলাদেশের মানুষ হয়ে
* আমারই চেতনার রঙে পান্না হল সবুজ
* ‘ওগো বাঁশিওয়ালা
* রেলগাড়ির কামরায় হঠাৎ দেখা
* কররবমুখরিত খ্যাতির প্রাঙ্গণে যে আসন
* জাগে নি এখনো জাগে নি
* নাগিনীরা চারিদিকে ফেলিতেছে বিষাক্ত নিশ্বাস
* যখন রব না আমি মকর্ত্যকায়ায়
* একদিন তরীখানা থেমেছিল এই ঘাটে লেগে
* এ তো বড়ো রঙ্গ জাদু, এ তো বড় রঙ্গ
* পাকুড়তলির মাঠে
* পাগলা হাওয়ার বাদল দিনে
* এ দ্যুলোক মধূময়, মধুময় পৃথিবীর ধূলি
* এ আমির আবরণ সহজে স্খলিত হয়ে যাক
* বিপুলা এ পৃথিবীর কতটুকু জানি
* ওই মহামানব আসে
* রূপনারানের কূলে
* প্রথম দিনে সূর্য
* তোমার সৃষ্টির পথ রেখেছ আকীর্ণ করি

Title শ্রেষ্ঠ কবিতা
Author
Publisher
Country বাংলাদেশ
Language বাংলা

Sponsored Products Related To This Item

Customers who bought this product also bought

Reviews and Ratings

4.13

8 Ratings and 1 Review

Product Q/A

Have a question regarding the product? Ask Us

Show more Question(s)

Recently Sold Products

call center

Help: 16297 24 Hours a Day, 7 Days a Week

Pay cash on delivery

Pay cash on delivery Pay cash at your doorstep

All over Bangladesh

Service All over Bangladesh

Happy Return

Happy Return All over Bangladesh