book_image

শ্রেষ্ঠ কবিতা

by রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

Price: TK. 225

TK. 300 (You can Save TK. 75)
শ্রেষ্ঠ কবিতা

শ্রেষ্ঠ কবিতা

7 Ratings / 1 Review

TK. 225 TK. 300 (You can Save 25%)

tag_icon

পয়েন্ট জমান, ক্যাশ করুন, পছন্দের পণ্য কিনুন। বিস্তারিত

tag_icon

বিকাশ পেমেন্টে ১০% ক্যাশব্যাক ও ১০১০+ ৳ অর্ডারে নিশ্চিত ফ্রি শিপিং।*

Product Specification & Summary

সূচিপত্র
এক সূত্রে বাঁধিয়াছি সহস্রটি মন
* সখী, ভাবনা কাহারে কয়, সখী, যাতনা কাহারে বলে
* আমার প্রাণের ‘পরে চলে গেল কে
* মরণ রে, তুঁহু মম শ্যামসমমান
* মরিতে চাহি না আমি সুন্দর এ ভুবনে
* নারীর প্রাণের প্রেম মধুর কোমল
* ধুরের কানে যেন অধরের ভাষা
* ফেলো গো বসন ফেলো, ঘুচাও অঞ্চল
* প্রতি অঙ্গ কাঁদে তব প্রতি অঙ্গ তরে
* কেন চেয়ে আছ গো মা মুখপানে?
* আমায় বোলো না গাহিতে বোলো না
* ভালো যদি বাস সখী, কী দিব গো আর
* পুরোনো সেই দিনের কথা, ভুলবি কি রে হায়
* এ শুধু অলস মায়া, এ শুধু মেঘের খেলা
* তবু মনে রেখো, যদি দূরে যাই চলি
* ‘বেলা যে পড়ে এল, জলকে চল!
* এমন দিনে তারে বলা যায়
* বঁধু, তোমায় করব রাজা তরুতলে
* কবিবর, কবে কোন বিস্মৃত বরষে
* গগনে গরজে মেঘ, ঘন বরষা
* স্বপ্ন দেখেছেন, রাত্র হবুচন্দ্র ভূপ
* খাঁচার পাখি ছিল, সোনার খাঁচাটিতে
* আমি পরানের সাথে খেলিব আজিকে
* যদি ভরিয়া লইবে কুম্ভ, এসো ওগো, এসো মোর
* আর কত দূরে নেয় যাবে মোরে
* সংসারে সবাই যবে সারাক্ষণ শত কর্মে রত
* অন্ধকার বনচ্ছায়ে সরস্বতীতীরে
* আমরা লক্ষ্ণীছাড়ার দল ভবের পদ্মপত্রে জল
* শুধু বিঘে দুই ছিল মোর ভুঁই, আর সবই গেছে ঋণে
* নহ মাতা, নহ কন্যা, নব বধু, সুন্দরী রূপসী
* অচ্ছোদসরসীনীরে রমণী যেদিন
* আজি হতে শতবর্ষ পরে
* খেয়ানৌকা পারাপার করে নদীস্রোতে
* দাও ফিরে সে অরণ্য লও এ নগর
* পুণ্যে পাপে দুঃখে সুখে পতনে উত্থানে
* শুধু বিধাতার সৃষ্টি নহ তুমি নারী
* তবু কি ছিল না তব সুখ দুঃখ যত
* রথযাত্রা, লোকারণ্য, মহা ধুমধাম
* শৈবাল দিঘিরে বলে উচ্চ করি শির
* দ্বার বন্ধ ক’রে দিয়ে ভ্রমটারে রুখি
* উত্তম নিশ্চিন্তে চলে অধমের সাথে
* গ্রামে গ্রামে সেই বার্তা রটি গেল ক্রমে
* নৃপতি বিম্বিসার
* নদীতীরে,তবৃন্দাবনে, সনাতন একমনে
* প্রত দিল পাঠান কেসর কাঁরে
* যদিও সন্ধ্যা আসিছে মন্দ মন্থরে
* ওই আসে ওই অতি বৈরব হরষে
* পঞ।চশরে দগ্ধ করে করেছ এ কী সন্ন্যাসী
* এ কি তবে সবই সত্য
* বন্ধু, কিসের তরে অশ্রু ঝরে, কিসের লাগি দীর্ঘশ্বাস
* ওগো কাঙাল, আমারে কাঙাল করেছ
* যামিনী না যেতে জাগালে না কেন
* অয়ি ভুবনমনোমোহিনী
* ওরে মাতাল , দুয়ার ভেঙে দিয়ে
* পঞ্চাশোর্ধ্বে বনে যাবে
* আজ বসন্তে বিশ।বখাতায়
* মনেরে আজ কহ যে
* আমি যদি জন্ম নিতেম কালিদাসের কালে
* আমি যে বেশ সুখে আছি
* আমরা দুজন একটি গাঁয়ে থাকি
* হাল ছেড়ে আজ বসে আমি আমি
* যেদিন হিমাদ্রিশৃঙ্গে নামি আসে আসন্ন আষাঢ়
* কত কাল রবে বল’ ভারত রে
* নীল নবঘনে আষাঢ় গগণে
* কৃষ্ণকলি আমি তারেই বলি
* মনে করো, যেন বিদেশ ঘুরে
* পাগল হইয়া বনে বনে ফিরি
* দিনের শেষে ঘুমের দেশে ঘোমটা-পরা ওই ছায়া
* আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি
* যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে তবে একলা
* আজি বাংলাদেশের হৃদয় হতে কখন আপনি
* সার্থক জনম আমার জন্মেছি এই দেশে
* তোরা কেউ পারবি নে গো
* আমি বহু বাসনায় প্রাণপণে চাই
* ও যে মানে না মানা
* পারবি না কি যোগ দিতে এই ছন্দে রে
* জগতে আনন্দযজ্ঞ আমার নিমন্ত্রণ
* আমি এই গন্ধবিধুর সমীরণে
* আরো আঘাত সইবে আমার, সইবে আমারে
* হে মোর চিত্ত, পুণ্য তীর্থে
* হে মোর দুর্ভাগ্য দেশ, যাদের করেছ অপমান
* আমার সকল নিয়ে বসে আছি সর্বনাশের আশায়
* আমি রূপে তোমায় ভোলাব না, ভালোবাসায় ভোলাব
* ঘরেতে ভ্রমর এল গুনগুনিয়ে
* সুন্দর বটে তব অঙ্গদখানি তারায় তারায় খচিত
* জানি গো দিন যাবে
* যদি প্রেম দিলে না প্রাণে
* নিত্য তোমার যে ফুল ফোটে ফুল বনে
* তোমায় আমায় মিলন হবে বলে আলোয় আকাশ
* ওরে নবীন, ওরে আমার কাঁচা
* এ কথা জানিতে তুমি, ভারত ঈশ্বর শা-জাহান
* সন্ধ্যারাগে ঝিলিমিলি ঝিলমের স্রোতকানি বাঁকা
* আমার নিকড়িয়া রসের রসিক কানন, ঘুরে ঘুরে
* ‘আমি পথভোলা এক পথিক এসেছি’
* ডাক্তারে যা বলে বলুক নাকো
* দিনগুলি মোর সোনার খাঁচায় রইল না
* তালগাছ এক পায়ে দাঁড়িয়ে
* মাকে আমার পড়ে না মনে
* এখানে নামল সন্ধ্যা। সূর্যদেব, কোন দেশে কোন
* গাড়িতে ওঠবার সময় একটুখানি মুখ ফিরিয়ে
* আঁধার রাতে একলা পাগল যায় কেঁদে
* যৌবনবেদনারসে উচ্ছল আমার দিনগুলি
* দুয়ার বাহিরে যেমনি চারি রে মনে হল যেন চিনি
* আজিকার দিন না ফুরাতে
* বনে যদি ফুটল কুসুম নেই কেন সেই পাখি
* আঁধারের লীলা আকাশে আলোকলেখায় লেখায়
* মধ্যদিনে যবে গান বন্ধ করে পাখি
* তুনি যে তুমিই, ওগো
* পথ বেঁধে দিল বন্ধনহীন গ্রন্থি
* নারীকে আপন ভাগ্য জয় করিবার
* সাগরজলে সিনান করি সজল এলো চুলে
* বসন্তবায় সন্ন্যাসী হায়, চৈৎ ফসলের শূন্য ক্ষেতে
* ধর্মের বেশে মোহ যারে এসে ধরে
* একটুকু ছোঁওয়া লাগে, একটুকু কথা শুনি
* প্রাঙ্গণে মোর শিরীষশাখায় ফাগুন মাসে
* নীল-অঞ্জনঘন পুঞ্জছায়ায়
* কিনু গোয়ালার গলি
* মনে পদে, যেন এক কালে লিখিতাম
* তোমারে জাকিনু যবে কুঞ্জবনে
* যায় আসে সাঁওতাল মেয়ে
* আজ আমার প্রণতি গ্রহণ করো, পৃথিবী
* ওরা,অন্ত্যজ, ওরা মন্ত্রবর্জিত
* বাংলাদেশের মানুষ হয়ে
* আমারই চেতনার রঙে পান্না হল সবুজ
* ‘ওগো বাঁশিওয়ালা
* রেলগাড়ির কামরায় হঠাৎ দেখা
* কররবমুখরিত খ্যাতির প্রাঙ্গণে যে আসন
* জাগে নি এখনো জাগে নি
* নাগিনীরা চারিদিকে ফেলিতেছে বিষাক্ত নিশ্বাস
* যখন রব না আমি মকর্ত্যকায়ায়
* একদিন তরীখানা থেমেছিল এই ঘাটে লেগে
* এ তো বড়ো রঙ্গ জাদু, এ তো বড় রঙ্গ
* পাকুড়তলির মাঠে
* পাগলা হাওয়ার বাদল দিনে
* এ দ্যুলোক মধূময়, মধুময় পৃথিবীর ধূলি
* এ আমির আবরণ সহজে স্খলিত হয়ে যাক
* বিপুলা এ পৃথিবীর কতটুকু জানি
* ওই মহামানব আসে
* রূপনারানের কূলে
* প্রথম দিনে সূর্য
* তোমার সৃষ্টির পথ রেখেছ আকীর্ণ করি

Title শ্রেষ্ঠ কবিতা
Author
Publisher
Country বাংলাদেশ
Language বাংলা

Customers who bought this product also bought

Reviews and Ratings

Submit Review-Rating and Earn 30 points (minimum 40 words)

4.57

7 Ratings and 1 Review

Recently Sold Products

call center

Help: 16297 / 01519521971 24 Hours a Day, 7 Days a Week

Pay cash on delivery

Pay cash on delivery Pay cash at your doorstep

All over Bangladesh

Service All over Bangladesh

Happy Return

Happy Return All over Bangladesh