স্বপ্নের সমান বড় (বক্তৃতার চতুর্থ বই) - আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ | Buy Sopner Soman Boro - Abdullah Abu Syeed online | Rokomari.com, Popular Online Bookstore in Bangladesh

Product Specification

Title স্বপ্নের সমান বড় (বক্তৃতার চতুর্থ বই)
Author আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ
Publisher সময় প্রকাশন
Quality হার্ডকভার
ISBN 9789848942734
Edition 3rd Printed, 2016
Number of Pages 94
Country বাংলাদেশ
Language বাংলা

Product Summary

ফ্ল্যাপে লেখা কিছু কথা
আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ আমাদের কালের সবচেয়ে খ্যাতিমান বক্তা। কথার ইন্দ্রজালে শ্রোতাদের মন্ত্রমুগ্ধ করে রাখেন তিনি। যেমন মঞ্চে, তেমনি টেলিভিশনে তাঁর উজ্জ্বল রমনীয় কথামালা তাঁকে এ যুগের বহু মানুষের প্রিয় ব্যক্তিত্ব করে তুলেছে। তাঁর বক্তৃতায় একই সঙ্গে পাওয়া যায় কবিতার স্বপ্নীল লালিত্য, হাস্যরসের দীপ্তি, বুদ্ধির ছটা আর জীবন ও পৃথিবী সম্বদ্ধে গভীর দার্শনিক দৃষ্টিভঙ্গি। সবকিছু ছাপিয়ে তাঁর বক্তৃতায় আলোড়িত হয়ে ওঠে তাঁর ভেতরকার অপরাজিত আশাবাদ। এসব কারনে তাঁর বক্তৃতা শ্রোতাদের কেবল মোহিতই করে না, করে তোলে উজ্জীবিত, উদ্দীপ্তি ও অনুপ্রাণিত। সভাসমিতিতে শ্রোতাদের উদ্দেশ্যে দেওয়া তাঁর এসব বক্তৃতার কয়েকটির লিখিতরূপ তৈরি করে এরই মধ্যে তাঁর তিনটি বক্তৃতার বই বেরিয়েছে।এবার বের হল তাঁর চতুর্থ বক্তৃতার বই : ‘স্বপ্নের সমান বড়।’ আবদুল্লাহ আবু সায়ীদের সাফল্য নানা দিকে। যে গুণটির জন্য তিনি দেশের সবার ভরসার স্থল হয়ে রয়েছেন সে হল তাঁর স্বপ্নচারিতা ও আশাবাদ। আশাবাদের এই ফেরিওয়ালা উচ্চতম জীবনের যে স্বপ্ন দেখেন এই বইয়ের প্রতিটি শব্দেই যেন তা স্পন্দমান। এ বইযের প্রতিটি লেখা তাঁর স্বপ্নের বাংলাদেশে, স্বপ্নের পৃথিবী, স্বপ্নের মানুষত্বকে স্পর্শের আকুতিতে বাঙ্ময়। অসাধারণ ও অনবদ্য ভাষায় দেওয়া এই বক্তৃতাগুলো বাংলাসাহিত্যের মূল্যবান সম্পদ।
আনিসুল হক

ভূমিকা
গত পঞ্চাশ বছর ধরে শিক্ষকতা আমার পেশা ও নেশা। ক্লাসঘরে বক্তৃতা করা তাই আমার নিয়তি। এছাড়াও গত পঁয়ত্রিশ বছর ধরে এদেশের নানা স্কুল-কলেজে, সভা-সমিতিতে, সামাজিক-সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বা সেমিনারে আমাকে হাজার হাজার বক্তৃতা দিতে হয়েছে।এমনও দিন গেছে যেদিন সকাল থেকে রাত-পর্যন্ত সময়-পরিসরে ছ’সাতটা বক্তৃতাও করেছি। নির্বিকার নির্বিচার ক্লান্তিহীন সেসব বক্তৃতা। অনুষ্ঠানের আয়োজদের হুকুমে ও চোখ-রাঙানির মুখে বক্তৃতাগুলো করতে হয়েছে বলে পৃথিবীতে হেন বিষয় নেই, যে বিষয়ে কথা বলতে হয়নি। একদিন বক্তৃতা করতে করতে হঠাৎ টের পেলাম ক্ল্যাসিক্যাল মিউজিকের ওপর বক্তৃতার পরই আমি বক্তৃতা করছি ঢাকার সুয়্যারেজ সিস্টেমের ওপর। ভারতচন্দ্র লিখেছিলেন, ‘সে কহে বিস্তর মিছা যে কহে বিস্তার।’ বেশি বলতে গিয়ে মিথ্যা কথা কত বলেছি জানি না, কিন্তু এত বিশ্রামহীনভাবে কথা বলতে থাকলে গলার স্বর নষ্ট হওয়ার কথা। আমারও হয়েছে তাই। ফলে বক্তৃতা করার ভবযন্ত্রণা থেকে সম্প্রতি আমি অনেকটা মুক্তি পেয়েছি। বিভিন্ন সমযে বিভিন্ন বিষয়ের ওপর যেসব বক্তৃতা করেছি তার অল্পকিছু বক্তৃতা নানাজনের বিভিন্ন উৎসাহে মাঝে-মধ্যে টেপ করা হয়ে গিয়েছিল।ত তার বেশ কিছু বক্তৃতা লিখিত রূপ তৈরি করে ও কিছুটা ঘষামাজা করে এর আগে আমি তিনটা বক্তৃতার বই বের করেছি। এবার বের করলাম চতুর্থটি।
আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ
০৯.০২.২০১২

সূচিপত্র
*যুগান্তরের প্রতীক্ষায়
*রবীন্দ্রনাথের শিক্ষা-স্বপ্ন
*সবচেয়ে ভালোবাস মাতৃভাষাকে
*ক্লসঘরের কথা : ‍দি ওল্ড ম্যান অ্যান্ড দ্র সি
*ক্লাসঘরের কথা : ড. জেকিল ও মি. হাইড
*শিশুর মতো পবিত্র
*ঘরের ভেতরে একটুকরো প্রকৃতি
*আলোর ফেরিওয়ালা
*ইব্রাহীম ফাত্‌মী

Author Information

আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ একজন বহুমুখী ব্যক্তিত্ব। অধ্যাপনা করেছেন তিনি তিরিশ বছর-১৯৬২ সাল থেকে ১৯৯২ পর্যন্ত। অধ্যাপক হিসেবে তাঁর খ্যাতি কিংবদন্তিতুল্য। ষাটের দশকে বাংলাদেশে যে নতুন ধারার সাহিত্য আন্দােলন হয়, তিনি ছিলেন তার নেতৃত্বে। সাহিত্য পত্রিকা 'কণ্ঠস্বর সম্পাদনার মাধ্যমে সেকালের নবীন সাহিত্যযাত্রাকে তিনি নেতৃত্ব ও দিকনির্দেশনা দিয়ে সংহত ও বহমান করে রেখেছিলেন এক দশক ধরে। বাংলাদেশে টেলিভিশনের সূচনালগ্ন থেকে মনস্বী, রুচিমান ও বিনোদন-সক্ষম ব্যক্তিত্ব হিশেবে আবির্ভূত হন আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ। টেলিভিশনের বিনােদন ও শিক্ষামূলক অনুষ্ঠানের উপস্থাপনায় তিনি পথিকৃৎ ও অন্যতম সফল ব্যক্তিত্ব। এইসব ব্যস্ততার মধ্যেও তিনি সাহিত্যচর্চায় নির্বিষ্ট। কবিতা, প্রবন্ধ, ছােটগল্প, নাটক, অনুবাদ, জর্নাল, জীবনীমূলক বই ইতািলয়ে তাঁর গ্রন্থভাণ্ডারও যথেষ্ঠ সমৃদ্ধ। তাঁর প্রকাশিত গ্রন্থ ২৭ টি। আবদুল্লাহ আবু সায়ীদের ব্যক্তিত্বের প্রায় সবগুলো দিক সমন্বিত হয়েছে তার বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের সংগঠক সত্তায় । তিনি অনুভব করেছেন যে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তোলার লক্ষ্যে আমাদের প্রয়োজন অসংখ্য উচ্চায়ত মানুষ। আলোকিত মানুষ চাই”—সারা দেশে এই আন্দোলনের অগ্রযাত্রী হিশেবে ত্রিশ বছর ধরে তিনি রয়েছেন সংগ্রামশীল। ২০০০ সাল থেকে সামাজিক আন্দােলনে উদ্যোগী ভূমিকার জন্য তিনি দেশব্যাপীঅভিনন্দিত হয়েছেন। ডেঙ্গু প্রতিরোধ আন্দােলন, পরিবেশ দূষণ-বিরোধী আন্দােলনসহ নানান সামাজিক আন্দােলন তাঁর নেতৃত্বে প্রাণ পেয়েছে। আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ, পিতা মৃত আয়ীম উদ্দিন, জন্মস্থান : পার্ক সার্কাস, কলকাতা। জন্মসাল: ২৫ জুলাই ১৯৪০। পৈতৃক নির্বাস : কামারগতি, কচুয়া বাগেরহাট। বর্তমান ঠিকানা : ৭৭ সেন্ট্রাল রোড, ধানমন্ডি, ঢাকা। শিক্ষা : মাধ্যমিক : পাবনা জিলা স্কুল (১৯৫৫); উচ্চমাধ্যমিক : প্রফুল্ল চন্দ্র কলেজ, বাগেরহাট ১৯৫৭; স্নাতক সম্মান (বাংলা) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (১৯৬০), স্নাতকোত্তর (বাংলা) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (১৯৬১)। পেশা : অধ্যাপনা, প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি : বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র। পুরস্কার : জাতীয় টেলিভিশন পুরস্কার (১৯৭৭), মাহবুব উল্লাহ ট্রাস্ট পুরস্কার (১৯৯৮), রোটারি সিড পুরস্কার (১৯৯৯), বাংলাদেশ বুক ক্লাব পুরস্কার (২০০০), র্যামন ম্যাগসাইসাই পুরস্কার : (২০০৪), একুশে পদক (২০০৫), শেলটেক পদক (২০০৬)।

স্বপ্নের সমান বড় (বক্তৃতার চতুর্থ বই)

স্বপ্নের সমান বড় (বক্তৃতার চতুর্থ বই)

by আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ

(7)

TK. 132 TK. 150 (You are Saving 12%)


tag_icon

পয়েন্ট জমান, ক্যাশ করুন, পছন্দের পণ্য কিনুন। বিস্তারিত


icon

Order Delivery Tk. 40

icon

Purchase & Earn

Readers also bought

Details

Reviews and Ratings

Submit Review-Rating and Earn 30 points (minimum 40 words)

4.43

7 Ratings and 1 Review

Recently Sold Products