স্যাম চাচাকে লেখা মান্টোর চিঠি image

স্যাম চাচাকে লেখা মান্টোর চিঠি (হার্ডকভার)

by সাদত হাসান মান্টো

TK. 150 Total: TK. 129

(You Saved TK. 21)
  • Look inside image 1
  • Look inside image 2
  • Look inside image 3
  • Look inside image 4
  • Look inside image 5
  • Look inside image 6
  • Look inside image 7
  • Look inside image 8
  • Look inside image 9
  • Look inside image 10
  • Look inside image 11
স্যাম চাচাকে লেখা মান্টোর চিঠি

স্যাম চাচাকে লেখা মান্টোর চিঠি (হার্ডকভার)

1 Rating  |  2 Reviews
TK. 150 TK. 129 You Save TK. 21 (14%)
in-stock icon In Stock (only 1 copy left)

* স্টক আউট হওয়ার আগেই অর্ডার করুন

discount-icon InApp extra 3% off, use promocode: APPUSER

Book Length

book-length-icon

79 Pages

Edition

editon-icon

1st Published

Publication

publication-icon
ঐতিহ্য

ISBN

isbn-icon

9789847764856

book-icon

বই হাতে পেয়ে মূল্য পরিশোধের সুযোগ

mponey-icon

৭ দিনের মধ্যে পরিবর্তনের সুযোগ

Frequently Bought Together

Customers Also Bought

Product Specification & Summary

স্বদেশ থেকে উন্মলিত ও সর্বার্থে বিপন্ন একজন মানুষের সামনে পায়ের নিচে একটুখানি মাটি পাওয়ার সুযােগ। আসা সত্ত্বেও কেউ যখন তা গ্রহণ না করেন, তখন। হিসেবি লােকদের কাছে তাকে বেহিসেবি মনে হওয়াই স্বাভাবিক। কিন্তু মনুষ্য-সমাজে সংখ্যায় নগণ্য হলেও এমন কিছু মানুষ থাকেন যারা ওই 'স্বাভাবিকতা' বহির্ভূত । সাদত হাসান মান্টো সেই ব্যতিক্রমীদের একজন । ক্ষতাক্ত স্বাধীন ভারতের দুই অঞ্চলেই তখন মুহাজির-অমুহাজির উভয় শ্রেণির বহু মানুষের মধ্যে চলছিল জমি-দোকানপাট-কলকারখানা দখলের কাড়াকাড়ি। মান্টোকে বলা হলেও এই কাড়াকাড়িতে তাঁর মন সায় দেয়নি। তারপর সুযােগ আসে একেকটা। লেখার বিনিময়ে পাঁচশাে করে রুপি পাওয়ার। মান্টো তখন নিঃসীম দারিদ্র্যে দিশেহারা। পরিবারের গ্রাসাচ্ছাদনের কোনাে ব্যবস্থা নেই। অথচ সুযােগটা তিনি গ্রহণ করলেন না। নাকি করলেন? বিচারের ভার। পাঠকের ওপর ছেড়ে দিয়ে শুধু ঘটনাটা বিবৃত করা যাক। বিশ্বমােড়ল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের খবরদারি প্রতিষ্ঠান। ইউনাইটেড স্টেট ইনফরমেশন সার্ভিস। একদিন লাহাের অফিসের এক কর্তা মিস্টার স্মিথ মান্টোর ডেরায় এসে প্রস্তাব দিলেন তাদের ম্যাগাজিনে তিনি যেন কিছু লেখা দেন। প্রতিটি লেখার দক্ষিণা পাচশাে রুপি। মান্টো দুশাের বেশি নেবেন না। ঝলোবালির পর রফা হলাে তিনশাে রুপিতে। মান্টো তার লেখায় গ্রহণ করলেন চিঠির ফর্ম। কোনাে এক স্যাম চাচাকে সম্বােধন করে লেখা সেই চিঠি।
স্যাম চাচা ঠিক অনির্দিষ্ট কোনাে একজন লােক নয় । রক্ত-মাংসের বাস্তব মানুষ। নাম স্যামুয়েল উইলসন, মােড়ক-দেওয়া মাংস বিক্রেতা। বিশ্বযুদ্ধ তাকে বিখ্যাত করে তােলে। এমনকি মার্কিন সরকারের কাছেও মান্টো। প্রথম যে-লেখাটি খামে ভরে মার্কিন দপ্তরে নিয়ে গেলেন তা। ওই আঙ্কেল স্যাম বা স্যাম চাচাকে লেখা একটা চিঠি। ওই চিঠিতে মান্টো মার্কিন সাম্রাজ্যবাদের মুখােশ উন্মােচন করেছেন। দেখিয়েছেন তথাকথিত সভ্যতার আড়ালে। দাঁত-নখ বের-করা এক বীভৎস রূপ । স্যাম চাচা হয়ে যায় মার্কিন সাম্রাজ্যবাদের প্রতীক। এরপর মান্টো তাকে আরও আটটি চিঠি লেখেন। কী বলা যাবে একে? পাগলামি, না ত্যাড়ামি? চরম দারিদ্র্যের মধ্যেও নিজের শিল্পীসত্তাকে মরতে না দিতে ক-জন পারেন! । বাংলা অনুবাদে মান্টোর চিঠিগুলাে পড়ার সুযােগ। বাংলাদেশের পাঠকেরা বােধকরি এই প্রথম পেলেন। যারা এই বিরল মানুষটিকে জানেন তারা চিঠিগুলাে থেকে। মান্টোর ভিন্ন এক সত্তার পরিচয় পাবেন আশা করি ।
Title স্যাম চাচাকে লেখা মান্টোর চিঠি
Author
Translator
Publisher
ISBN 9789847764856
Edition 1st Published, 2019
Number of Pages 79
Country বাংলাদেশ
Language বাংলা

Similar Category Best Selling Books

Related Products

Sponsored Products Related To This Item

Reviews and Ratings

3.0

1 Rating and 2 Reviews

sort icon

Product Q/A

Have a question regarding the product? Ask Us

Show more Question(s)
prize book-reading point

Recently Sold Products

Recently Viewed
cash

Cash on delivery

Pay cash at your doorstep

service

Delivery

All over Bangladesh

return

Happy return

7 days return facility

0 Item(s)

Subtotal:

Customers Also Bought

Are you sure to remove this from bookshelf?

স্যাম চাচাকে লেখা মান্টোর চিঠি